ঢাকা, , শনিবার, ৩১ আগস্ট ২০১৯

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ৪১ এনজিও কার্যক্রম বন্ধ:পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশ: ২০১৯-০৮-৩১ ১৪:২৮:৩১ || আপডেট: ২০১৯-০৮-৩১ ১৪:৩৭:৩২

সিএসবি ডেস্ক: রোহিঙ্গারা যাতে দেশে ফেরত না যায়, সে ব্যাপারে এনজিওদের ইন্ধন আছে এবং ক্যাম্পে এজনিওদের রাজনীতি করার অভিযোগে ৪১ টি এনজিওকে প্রত্যাহার করা হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

তিনি জানান, রোহিঙ্গারা এদেশে আসার পর ১৩৯টি এনজিও ক্যাম্পে নিজস্ব কার্যক্রম শুরু করে। অপকর্মে লিপ্ত থাকায় এখন ৪১টি এনজিওকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। এছাড়াও আরও অনেক এনজিওকেও অচিরেই প্রত্যাহার করা হবে বলে জানান তিনি।

শনিবার (৩১ আগস্ট) দুপুরে দক্ষিণ সুরমায় সিলেট সিটি করপোরেশনের মেডিক্যাল বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কার্যক্রমের উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

আব্দুল মোমেন বলেন, ‘এখনও বিভিন্ন এনজিও একই কাজ করছে। সে ধরনের তথ্য প্রমাণ পাওয়া যাচ্ছে। তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে। যদিও বিভিন্ন দেশি ও বিদেশি এনজিও নানাভাবে তদবির করছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নেওয়ার।’

উল্লেখ্য, রাখাইনে মিয়ানমারের সেনাদের নির্যাতন হতে জীবন বাঁচাতে ২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট থেকে বাংলাদেশে রোহিঙ্গাদের ঢল নামে। কক্সবাজারের উখিয়া-টেকনাফে আশ্রয় নেন বিপুল সংখ্যক রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী। নতুন-পুরনো মিলিয়ে এখন ১১ লাখের বেশি রোহিঙ্গা কক্সবাজারে অবস্থান করছে। মানবিক কারণে বাংলাদেশ তাদের আশ্রয়ের পাশাপাশি সার্বিক সুযোগ-সুবিধা দিয়ে যাচ্ছে। দেশি-বিদেশি এনজিওর পাশাপাশি বাংলাদেশ সরকার তাদের খাদ্য, অস্থায়ী বাসস্থান, চিকিৎসা, বস্ত্র, লেখাপড়া, বিনোদনসহ নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করেছে। পাশাপাশি রোহিঙ্গাদের নিরাপদে রাখাইনে ফেরত পাঠাতে কূটনৈতিক প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছে সরকার। কিন্তু রোহিঙ্গাদের অনেকেই জড়িয়ে পড়ছে অপরাধে। তাদের কাছ থেকে আগ্নেয়াস্ত্র ও ইয়াবা উদ্ধার হচ্ছে।

Skip to toolbar Log Out