ঢাকা, , রোববার, ১২ মে ২০১৯

শাহজালাল বিমানবন্দরে স্ক্যানারে ধরা পড়েনি ইলিয়াস কাঞ্চনের পিস্তল

প্রকাশ: ২০১৯-০৩-০৬ ১৫:১৯:১৭ || আপডেট: ২০১৯-০৩-০৬ ২০:১০:৫৮

অনলাইন ডেস্ক: পিস্তল ও ১০ রাউন্ড গুলিসহ রাজধানীর হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের প্রথম গেট পার হয়ে গিয়েছিলেন চিত্রনায়ক ও নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) আন্দোলনের চেয়ারম্যান ইলিয়াস কাঞ্চন। বিমানবন্দরের গেটে থাকা স্ক্যানারে বিষয়টি ধরা পড়েনি। বিমানবন্দরের একাধিক সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, চট্টগ্রামে যাওয়ার জন্য মঙ্গলবার দুপুরে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের অভ্যন্তরীণ টার্মিনালে আসেন ইলিয়াস কাঞ্চন। অভ্যন্তরীণ টার্মিনালের প্রথম গেটের স্ক্যানার মেশিনের নজর এড়িয়ে ৯ এমএম পিস্তল আর ১০ রাউন্ড গুলি ব্যাগে নিয়ে ভেতরে ঢুকে পড়েন তিনি।

এরপর নভো এয়ারের বুকিং কাউন্টারে গিয়ে ইলিয়াস কাঞ্চন জানান, তার সঙ্গে পিস্তল আছে যা স্ক্যানারে ধরা পড়েনি। তিনি পিস্তলটি সঙ্গে নিয়ে চট্টগ্রামে যেতে চান।

বিষয়টি জানার সঙ্গে সঙ্গেই ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন শাহজালাল বিমানবন্দরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। তাদের মধ্যে ছিলেন—মেম্বার সিকিউরিটি শাহ এমদাদুল হক, বিমানবন্দরের পরিচালকসহ (নিরাপত্তা) বিভিন্ন সংস্থার কর্মকর্তা।

বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের সদস্য (নিরাপত্তা) শাহ মো. ইমদাদুল হক বলেন, ‘তার (ইলিয়াস কাঞ্চন) অস্ত্র ধরা পড়েনি, এটা ঠিক হয়নি। বরং সচেতন নাগরিক হিসেবে তার উচিত ছিল, বিমানবন্দরে প্রবেশের সময়ই ঘোষণা করা যে সঙ্গে অস্ত্র আছে। তিনি (ইলিয়াস কাঞ্চন) তা করেননি। বরং বিমানে ওঠার আগে দ্বিতীয় ধাপে চেকিংয়ের সময় ধরা পড়ে অস্ত্রটি। তখন তিনি (ইলিয়াস কাঞ্চন) বলেন সঙ্গে অস্ত্র নিয়েছেন।’

অভ্যন্তরীণ টার্মিনালের প্রবেশে মুখের স্ক্যানারে অস্ত্র শনাক্ত করতে না পারা প্রসঙ্গে শাহ্ মো. ইমদাদুল হক বলেন, ‘বিমানবন্দরে দুধাপে চেক করা হয়। প্রথম ধাপই চূড়ান্ত  নয়। নিরাপত্তাব্যবস্থা ঠিক আছে বলেই অস্ত্রটি শনাক্ত করা গেছে।’

সাধারণত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নিয়ম অনুযায়ী, কেউ বৈধ অস্ত্র নিয়ে বিমানে ভ্রমণ করতে চাইলে অভ্যন্তরীণ টার্মিনালে প্রবেশের আগেই বিষয়টি জানাতে হবে। সেই সঙ্গে স্ক্যানারে দায়িত্বরত নিরাপত্তাকর্মীদের কাছেও বৈধতার প্রমাণপত্র দেখাতে হবে।