ঢাকা, , বৃহস্পতিবার, ৯ মে ২০১৯

ভারতীয় গণমাধ্যমে ‘ছোট ঘটনা’কে বড় করেছে: অভিনন্দন বর্তমান

প্রকাশ: ২০১৯-০৩-০২ ১২:১০:৫৭ || আপডেট: ২০১৯-০৩-০২ ১২:৫৮:৫০

অনলাইন ডেস্ক: ভারতীয় গণমাধ্যমে ‘ছোট ঘটনা’কে আগুন ধরিয়ে আরো বড় করে বানিয়ে বলছে বলে মন্তব্য করেছেন ভারতীয় পাইলট অভিনন্দন বর্তমান। পাকিস্তান ছাড়ার আগে এ কথা বলেছেন তিনি।

পাকিস্তানের ক্ষমতাসীন দল তেহরিক-ই-ইনসাফের ফেসবুক পাতায় দেওয়া ভিডিও সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলতে দেখা যায় অভিনন্দনকে। আজ শুক্রবার বাংলাদেশ সময় রাত ১০টার দিকে ১ মিনিট ২৪ সেকেন্ডের ওই ভিডিও ক্লিপটি প্রকাশ করা হয়। ঠিক তার কিছুক্ষণ আগে পাঞ্জাবের আত্তারি-ওয়াগাহ সীমান্ত দিয়ে ভারতে যান এই ভারতীয় পাইলট।

ভিডিও বার্তার শুরুতে নিজের পরিচয় দিয়ে ভারতীয় ‘বায়ুসেনা’র উইং কমান্ডার অভিনন্দন বলেন, ‘আমি ভারতীয় বায়ুসেনার যুদ্ধবিমান নিয়ে টার্গেট খুঁজছিলাম, এমন সময় তা ভূপাতিত হয়। আমিও তৎক্ষণাৎ বিমান থেকে প্যারাসুটে করে মাটিতে নামি। মাটিতে নামার সেখানে প্রচুর মানুষ জড়ো হয়। উপস্থিত পাকিস্তানিরা উত্তেজিত ছিলেন। আমার কাছে একটি পিস্তল আর কিছু জরুরি কাগজপত্র ছিল, আমি সেখান পালানোর চেষ্টা করছিলাম।

এর মধ্যে দুই পাকিস্তানি সেনা হাজির হয়, তারা আমাকে উত্তেজিত জনতার হাত থেকে রক্ষা করে। দুজনের মধ্যে পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর একজন ক্যাপ্টেন ছিলেন, তিনি মূলত আমাকে সেখান থেকে রক্ষা করে নিয়ে আসেন। তিনি আমাকে নিয়ে এসে প্রাথমিক চিকিৎসা দেন এবং পরে হাসপাতালে নিয়ে যান। পাকিস্তানি সেনাবাহিনী খুব পেশাদার একটি বাহিনী।’

তিনি বলেন, ‘ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ছোট ঘটনায় আগুন লাগিয়ে দিয়ে বড় করে বর্ণনা করছে।’

গতকাল বৃহস্পতিবারই পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান দেশটির পার্লামেন্টে জানান, আটক ভারতীয় পাইলটকে মুক্তি দেওয়া হবে, ফিরিয়ে দেওয়া হবে ভারতে। পাকিস্তানের পার্লামেন্টে দাঁড়িয়ে তিনি এই ঘোষণা দেওয়ার সময় বলেন, ‘শান্তি প্রক্রিয়ার পক্ষে শুভেচ্ছাস্বরূপ আটক ভারতীয় পাইলটকে মুক্তি দেওয়া হবে।’

এর আগে বুধবার ভারতীয় দুটি যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করার কথা জানায় পাকিস্তান। ওই দুটি যুদ্ধ বিমানের একটিতে ছিলেন অভিনন্দন বর্তমান। তাঁকে আহত অবস্থায় আটক করে পাকিস্তানি সেনা সদস্যরা।