ঢাকা, , শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০১৯

অবৈধভাবে মালয়েশিয়া যাওয়ার চেষ্টাকালে দুই দালালসহ ৩০ রোহিঙ্গা আটক

প্রকাশ: ২০১৯-০২-০৮ ২০:০২:৪২ || আপডেট: ২০১৯-০২-০৮ ২০:০২:৪৮


নিজস্ব প্রতিবেদক:

সাগরপথে অবৈধভাবে মালয়েশিয়া যাওয়ার পথে কক্সবাজারের টেকনাফ থেকে দুই দালালসহ ৩০ জন রোহিঙ্গা নারী-পুরুষকে আটক করেছে বিজিবি সদস্যরা। আটকরা উখিয়া-টেকনাফের বিভিন্ন ক্যাম্প ও আশপাশের এলাকায় বসবাসকারী রোহিঙ্গা।

বিজিবি সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে মানবপাচারকারী একটি চক্র শাহপরীর দ্বীপের ঘোলচর ও শুক্রবার ভোররাতে শীলখালীর নোয়াখালীয়া পাড়ায় রোহিঙ্গাদের মালয়েশিয়া পাচারের উদ্দেশ্যে জমায়েত করে। এ খবর পেয়ে বিজিবি’র দুটি পৃথক টহলদল নায়েক সিকদার শফিকুল ইসলাম ও নায়েক সুবেদার ছলাহ উদ্দিনের নেতৃত্বে অভিযান চালায়। অভিযানে শাহপরীর দ্বীপ এলাকার ঘোলাচর এলাকা থেকে এক দালালসহ ১২ রোহিঙ্গাকে আটক করা হয়। এর মধ্যে তিনজন পুরুষ, ছয়জন নারী ও তিন শিশু রয়েছে।

অপর অভিযানে নোয়াখালীয়া এলাকায় সাগর তীরবতী একটি জঙ্গল থেকে এক দালালসহ ১৮ রোহিঙ্গাকে আটক করা হয়। এর মধ্যে তিনজন পুরুষ, ১১ জন নারী ও চার শিশু রয়েছে। এসব রোহিঙ্গা মালয়েশিয়াগামী ট্রলারে ওঠার জন্য সাগর উপকূলে অপেক্ষামান ছিল বলে জানায় বিজিবি।

আটক দালালরা হল- টেকনাফ উপজেলার জাহাজপুরা এলাকার হাবিবুল্লাহর ছেলে মুহিবুল্লাহ (২০) ও দমদমিয়া গ্রামের আবদুল করিমের ছেলে হুমায়ুন (১৮)।

টেকনাফ ২ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল আছাদুদ জামান চৌধুরী জানান, দালালদের প্রলোভনে মোটা অংকের টাকায় এসব রোহিঙ্গা মালয়েশিয়া গমন করছিলেন। আটকদের জিজ্ঞাসাবাদের মাধ্যমে মানবপাচার চক্রের সঙ্গে জড়িত অন্যান্য দালালদের আটক করতে অভিযান চলছে। আটক রোহিঙ্গাদের স্ব-স্ব ক্যাম্পে ফেরত পাঠানো হয়েছে বলে জানান তিনি।