ঢাকা, , শুক্রবার, ২২ মার্চ ২০১৯

দুর্দান্ত জয়ে সিরিজে সমতা আনলো বাংলাদেশ

প্রকাশ: ২০১৮-১২-২১ ১৭:১৭:১৮ || আপডেট: ২০১৮-১২-২১ ১৭:১৭:১৮

খেলাধুলা: দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে দুর্দান্ত জয়ে সিরিজে সমতা আনলো বাংলাদেশ। মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে সফরকারী উইন্ডিজকে ৩৬ রানে হারিয়ে ১-১ সমতায় ফিরল টিম টাইগার। ২১২ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে উইন্ডিজ ১৯ ওভার ২ বলে সাকিবের দুর্দান্ত বোলিংয়ে ১৭৫ রানে গুটিয়ে যায়। স্বভাবতই তিন ম্যাচ সিরিজের শেষ ম্যাচটি রুপ নিলো অলিখিত ফাইনালে।

আজ বৃহস্পতিবার ব্যাটিংয়ের পর বোলিংয়েও সমান ভেলকি দেখিয়েছেন টাইগার অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। তার ঘূর্ণির সামনে অসহায় ছিলেন উইন্ডিজ ব্যাটসম্যানরা। চার ওভারে মাত্র ২১ রান দিয়ে সফরকারীদের পাঁচ উইকেট তুলে নেন সাকিব। এ ছাড়া মোস্তাফিজ দুই উইকেট ও আবু হায়দার, মেহেদী মিরাজ নেন একটি করে উইকেট। উইন্ডিজের হয়ে সর্বোচ্চ ৫০ রান করেন রভম্যান পাওয়েল। এ ছাড়া শাই হোপ ৩৬, কিমো পল ২৯ ও হেটমায়্যার ১৯ রান করেন।

এর আগে লিটন-সাকিবের অসাধারণ ব্যাটিংয়ে সফরকারীদের সামনে ২১২ রানের চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্য ছুড়ে দেয় স্বাগতিকরা। এদিন ব্যাটিংয়ে নেমে শুরু থেকেই আক্রমণাত্বক ক্রিকেট খেলেন টাইগাররা। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ২০ ওভার ব্যাটিং করে চার উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশ সংগ্রহ করে ২১১ রান।

সর্বোচ্চ ৬০ রান আসে লিটন দাসের ব্যাট থেকে। শুরু থেকেই মারকুটে খেলেন তিনি। মাত্র ৩৪ বলে ৬টি চার ও চারটি ছয়ের মারে ৬০ রান করেন। টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে এটি লিটনের দ্বিতীয় অর্ধ-শতক। প্রথম অর্ধশতকটি উইন্ডিজের বিপক্ষেই করেন তাদের মাটিতে।

শুরুতে ফিরে যান তামিম। পরে ব্যাটিংয়ে আসেন সৌম্য। তিনিও মারকুটে ব্যাটিং শুরু করেন। হঠাৎ লিটন আউট হয়ে গেলে রানের চাকা খানিক থেকে মায়। ক্রিজে আসেন মুশফিক। কিন্তু ৩ বলে ১ রান করে তিনিও ফিরে যান সাজঘরে। কিন্তু ব্যতিক্রম ছিলেন সাকিব-মাহমুদুল্লাহ। নেমেই বিধ্বংসী ব্যাটিং শুরু করেন তারা। ৫ম উইকেটের জুটিতে দুজনের ব্যাট থেকে আসে ৯১ রান। মাত্র ২৬ বলে ৪২ রান করেন সাকিব। মাহমুদুল্লাহর ব্যাট থেকে আসে ২১ বলে ৪৩ রান।