ঢাকা, , সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮

১৩ শ’ ক্যান বিয়ার ও ৫০ হাজার ইয়াবা ফেলে পালালো পাচারকারি

প্রকাশ: ২০১৮-১২-০৪ ২১:৩৭:২৪ || আপডেট: ২০১৮-১২-০৪ ২১:৩৭:২৪

নিজস্ব প্রতিবেদক:
কক্সবাজারের টেকনাফে পৃথক অভিযান চালিয়ে ৫০ হাজার ইয়াবা ও ১ হাজার ২৭৫ ক্যান বিয়ার জব্দ করেছে বিজিবি। বিজিবির উপস্থিতি ঠের পেয়ে মাদকগুলো ফেলে পাচারকারিরা অন্ধকারের সুযোগে পালিয়ে গ্রামে ঢুকে গেছে বলে দাবি করেছে অভিযানকারিরা। ফলে কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। মঙ্গলবার ভোরের পৃথক সময়ে এসব অভিযান চালানো হয়।
টেকনাফ-২ বিজিবি’র অধিনায়ক লে. কর্ণেল আছাদুদ জামান চৌধুরী জানান, ৪ডিসেম্বর মঙ্গলবার ভোরে সাবরাং ইউপিস্থ জিন্নাখাল এলাকা দিয়ে ইয়াবার একটি বড় চালান মিয়ানমার হতে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে পারে এমন খবর পেয়ে ব্যাটালিয়নের অধীনস্থ সাবরাং বিওপির টহলদল ঐ এলাকায় যান। কিছুক্ষণ পরে কয়েকজন লোককে জিন্নাখাল হতে আসতে দেখে তাদের দাঁড়াতে বলে। আকষ্মিক বিজিবি টহলদলের উপস্থিতি লক্ষ্য করা মাত্রই উক্ত ব্যক্তিরা অন্ধকারের সুযোগে দৌড়ে পাশ্ববর্তী গ্রামে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে টহলদল ঐ এলাকায় তল্লাশি করে পলিথিন দ্বারা মোড়ানো পরিত্যক্ত অবস্থায় ৩০ হাজার ইয়াবা ও ১ হাজার ২৭৫ ক্যান বিদেশী আন্দামান গোল্ড বিয়ার উদ্ধার করতে সক্ষম হয়।
অপরদিকে,  হ্নীলা বিওপির নায়েক মো. ছাবির উদ্দিনের নেতৃত্বে একটি টহলদল  মৌলভীবাজার লবন গুদামের পাশ দিয়ে আসা দু’ব্যক্তিকে দাঁড়াতে বললে তারা বিজিবির উপস্থিতি লক্ষ্য করা মাত্রই  উক্ত ব্যক্তিরা দৌড়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। তাদের পিছু ধাওয়া করলে তাদের হাতে থাকা একটি ব্যাগ ফেলে অন্ধকারের সুযোগে পাশ্ববর্তী গ্রামে পালিয়ে যায়। তাদের ফেলে যাওয়া ব্যাগটি খুলে গণনা করে ২০হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করতে সক্ষম হয়।
উদ্ধারকৃত বিয়ার ও ইয়াবা  ট্যাবলেটগুলো ব্যাটালিয়ন সদরে জমা রাখা হয়েছে, যা পরবর্তীতে উর্দ্ধতন কর্মকর্তা, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের প্রতিনিধি, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও মিডিয়া কর্মীদের উপস্থিতিতে ধ্বংস করা হবে।