ঢাকা, , সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮

রেকর্ড গড়েই দিন শেষ করল বাংলাদেশ

প্রকাশ: ২০১৮-১২-০১ ১৯:২১:০৭ || আপডেট: ২০১৮-১২-০১ ১৯:২১:০৭

পাহাড়সম রানের চাপ নিয়ে মাঠে নেমে দিশেহারা দিন পার করেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ব্যাটসম্যানরা। সাকিব-মিরাজ ঘুর্ণিতে নিজেদের ৫ উইকেট হারিয়ে দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষ করেছে দলটি।

দিন শেষে পাঁচ উইকেট হারিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সংগ্রহ ৭৫ রান। ৫০৮ রানের লিডে খেলতে নেমে নেমে প্রথমেই ফিরে যান ব্র্যাথওয়েট। তাকে ফিরিয়ে উইকেটের খাতা খোলেন সাকিব আল হাসান। তাকে শূন্য রানে ফেরান বিশ্ব সেরা এই অলরাউন্ডার। এর পর জোড়া আঘাতে কিয়েরন পাওয়েল ও শাই হোপকে সাজঘরের পথ দেখান মেহেদী হাসান মিরাজ।

নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে এসে দাঁড়াতেই পারেননি আম্ব্রিস ও রোস্টন চেজ। দুজনকেই বোল্ড করে ফিরিয়ে দেন সাকিব-মিরাজ। ক্রিজে থেকে দিন পার করেন হেটমায়ার ও ডওরিচ।

এদিন মিরাজ নেন তিনটি উইকেট, সাকিব ঝুলিতে আছে দুটি। উইন্ডিজরা পিছিয়ে আছে ৪৩৩ রানে।

মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে উইন্ডিজের বিপক্ষে দুটি রেকর্ড গড়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। প্রথমটি- সফরকারী ব্যাটারদের প্রথম পাঁচজনকে বোল্ড আউট করে ক্রিকেটের ১২৮ বছরে নতুন ইতিহাস গড়েছে বাংলাদেশ। যা টেস্ট ক্রিকেটে ঘটেছে মাত্র তিনবার!

আর দ্বিতীয়টি- দলের প্রতিটি ব্যাটসম্যানের দুই অঙ্কের স্কোর! এটি টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে ১৪তম বারের ঘটনা। যা বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথম।

প্রথম ইনিংসে মিরপুরের পিচে ৫০৮ রানের পাহাড় গড়েন মাহমুদউল্লাহ-সাদমানরা। প্রথম ইনিংসের ১৩৯.৬ ওভারে (দ্বিতীয় দিন, দ্বিতীয় সেশন) চেজের বল বাউন্ডারিতে পাঠিয়ে তিন অঙ্কের ঘর ছোঁয়ার উল্লাসে মেতে উঠেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। এর আগে ক্যারিয়ারে দুটি সেঞ্চুরি ছিল এ ডানহাতি ব্যাটসম্যানের। আজ হ্যাটট্রিক সেঞ্চুরি করেন তিনি। নিজের ব্যক্তিগত তৃতীয় শতক পূরণ করতে ২০৩ বল খরচ করতে হয় মাহমুদুল্লাহকে।

অভিষিক্ত সাদমান ইসলাম ৭৬, অধিনায়ক সাকিব আল হাসান ৮০ ও লিটন দাস করেন ৫৪ রান। এ ছাড়া মোহাম্মদ মিথুন ও মুমিনুল হক ২৯ রান করে সাজঘরে ফিরে যান। তাইজুল ইসলাম ২৬, সৌম্য সরকার ১৯, মেহেদী মিরাজ ১৮ ও মুশফিকুর রহিম ১৪ রান করে আউটন হন। নাঈম হাসান সর্বনিম্ন ১২ রান করে অপরাজিত থাকেন। গতকাল শুক্রবার টস জিতে ২৫৯ রান করে দিন শেষ করে টাইগাররা।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে সর্বোচ্চ হয়ে সর্বোচ্চ দুই উইকেট করে নেন কেমার রোচ, ওয়ারিক্যান, দেবেন্দ্র বিশু ও ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট। এ ছাড়া শিরমন লুইস ও রোস্টন চেজ নেন একটি করে উইকেট।

বাংলাদেশ একাদশ: সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), সৌম্য সরকার, সাদমান ইসলাম, মুমিনুল হক, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ, লিটন দাস, মেহেদী হাসান মিরাজ, মোহাম্মদ মিথুন, তাইজুল ইসলাম, নাঈম হাসান।

ওয়েস্টইন্ডিজ একাদশ: ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট (অধিনায়ক), কিয়েরন পাওয়েল, শাই হোপ, শিমরন হেটমায়ার, রোস্টন চেজ, সুনীল আমব্রিস, শেন ডাউরিচ, দেবেন্দ্র বিশু, কেমার রোচ, জোমেল ওয়ারিকান,শিরমন লুইস।